রাজবাড়ী সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ, রাজবাড়ী জেলা সদরের পাবলিক হেলথ মোড়ে -রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের দক্ষিন পাশে অত্যন্ত মনোরম ও প্রাকৃতিক পরিবেশে অবস্থিত। ১৯৬৫ খ্রিঃ ৩.৯০ একর জমির উপর প্রতিষ্ঠিত জেলার একমাত্র সরকারি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। শুরুতে প্রতিষ্ঠানটি “ভোকেশনাল ট্রেনিং ইন্সটিউিট বা ভিটিআই ” নাম করনে ৪০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে যাত্রা শুরু করে। পরবর্তী কালে ১৯৮৬ সালে জাতীয় দক্ষতা মানে উন্নীত হয়।বিশ্বায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা এবং দেশের বেশির ভাগ মানুষকে কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত ও দক্ষ জনবলে পরিনত করার জন্য সাধারণ ও কারিগরি শিক্ষার সময়ে ১৯৯৫ সালে ২ বছর মেয়াদী এস.এস.সি (ভোকেশনাল) এবং ১৯৯৭ সালে এইচ.এস.সি(ভোকেশনাল) শিক্ষা কার্যক্রম চালু করা হয়। ২০০৩ সালে “ভোকেশনাল ট্রেনিং ইন্সটিউিট বা ভিটিআই ” “রাজবাড়ী সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ ” নামে পরিচিতি লাভ করে। বর্তমানে নানা সীমাবদ্ধতা সত্তেও রাজবাড়ী সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে ৪ বিষয়ে সার্টিফিকেট কোর্স ও দুই শিফটে ৮৫০ জন শিক্ষার্থী এবং ২০১৬ সালে ৩ বিষয়ে ৪ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে ১৮০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে কারিগরি শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে এগিয়ে চলছে। শিক্ষার্থী কারিগরি বিষয় ভিত্তিক পড়াশোনা করে আত্মকর্মসংস্থান, দেশ ও বিদেশে বহুমুখী চাকুরীতে প্রবেশ করা সহ উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে এদেশকে মধ্য আয়ের দেশ থেকে উন্নত দেশে পরিণত করতে অবদান অব্যাহত রাখবে। মানোনীয় প্রধান মন্ত্রীর ভিশন “২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালে উন্নত দেশ” শ্লোগানকে এগিয়ে নিতে রাজবাড়ী সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

“একাবিংশ শতব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায়, সমাধান একমাত্র কারিগরি শিক্ষায়।”